গ্লোবাল রোড সেইফটি উইক-২০২১ উদযাপন: সড়ক আইন মেনে চলুন-প্রচারে পুলিশ কর্মকর্তাগণ

Dhaka Ahsania Mission

২০০৭ সালে UN Global Road Safety Week সর্বপ্রথম পালন করা হয়। “Streets for Life” এই স্লোগানকে সামনে রেখে এবছর সপ্তাহব্যাপী (১৭-২৩ মে) UN Global road Safety Week ৬ষ্ঠ বারের মত পালন করা হচ্ছে বিশ্বব্যাপী।
গ্লোবাল রোড সেইফটি উইক-২০২১ পালনে সপ্তাহব্যাপী ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের স্বাস্থ্য সেক্টর একাধিক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। তারই ধারাবাহিকতায় ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের স্বাস্থ্য সেক্টরের আয়োজনে আজ ১৮ মে, মঙ্গলবার “Social Media Solidarity”-তে অংশ নেয় আইন প্রয়োগকারী সংস্থার অন্যতম সেক্টর এবং সড়কে যারা সকলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করেন সেই পুলিশ কর্মকর্তাগণ।
জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে “সড়ক আইন মেনে চলুন, নিরাপদ জীবন গড়ুন” এই বার্তা প্রচার করেন অংশগ্রহণকারী পুলিশ কর্মকর্তাগণ তাদের নিজ নিজ ফেসবুকের মাধ্যমে। এছাড়া গতকাল ১৭ মে, সোমবার এই “Social Media Solidarity”-তে আহ্ছানিয়া মিশেনের স্বাস্থ্য সেক্টরের কর্মকর্তাগণ “গাড়ির গতি নিয়ন্ত্রণ করুন, নিরাপদ জীবন নিশ্চিত করুন”এই দাবির সাথে একাত্বতা প্রকাশ করেন এবং অংশ নেন।

উল্লেখ্য, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এর পরসিংখ্যানে বলা হয়েছে যে, বিশ্বে সড়কে প্রতি বছর প্রায় ১.৩ মিলিয়ন মানুষ মারা যায় । বাংলাদেশে ২০২০ সালে সড়ক দূর্ঘটনায় ৪ হাজার ৯৬৯ জন নিহত ও আহত হয়েছেন ৫ হাজার ৮৫ জন।

এসময় মোট ৪০৯২ টি সড়ক র্দূঘটনা ঘটে (পরিসংখ্যান নিরাপদ সড়ক চাই সংস্থা)। সড়ক দূর্ঘটনার একাধিক কারণ রয়েছে, যেগেুলো হল দ্রুত গতিতে গাড়ি চালানো, চালকদের মধ্যে প্রতিযোগিতা ও বেপরোয়া গাড়ি চালানোর প্রবণতা, দৈনিক চুক্তভিত্তিকি গাড়ি চালানো, লাইসন্সে ছাড়া চালক নিয়োগ, পথচারীদদের মধ্যে সচেতনতার অভাব, ট্রাফিক আইন ভঙ্গ করে ওভারটেকিং করা, বিরতি ছাড়াই র্দীঘসময় ধরে গাড়ি চালানো, ফিটনেসবিহীন গাড়ি চালানো, সড়ক ও মহাসড়কে মোটরসাইকেল ও তিন চাকার গাড়ি বৃদ্ধি এবং রাস্তার পাশে হাটবাজার ও দোকানপাট থাকা, মোটরযানে হেলমেট ব্যবহার না করা, সিটবেল্টের অর্পযাপ্ততা, যানবাহনে শিশুদের জন্য নিরাপদ আসন না থাকা প্রভৃতি।