গ্যাস নির্গতের পরিমাণ বেড়েই চলছে,এলাকাজুড়ে আতঙ্ক

Gas emissions continue to rise

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবার বায়েক ইউনিয়ন পরিষদের অষ্টজংগল সোনার বাংলা উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন টিউবওয়েলের জন্য খোড়া কূপ থেকে গ্যাস নির্গতের পরিমাণ বেড়েই চলছে। এতে আশপাশ ভবনের সীমানা প্রাচীর দেবে যাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার থেকে গ্যাস নির্গতের চাপ বাড়তে থাকে। এতে স্থানীয় লোকজনের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

বাপেক্সে’র ভূতত্ত্ববীদ আলমঙ্গীর হোসেন বলেন, গ্যাস নিগর্তের নমুনা ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। ঢাকা থেকে রিপোর্ট আসলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

গ্যাস নির্গতের কারণে আশপাশে আগুন না জ্বালানোর জন্য বলা হয়েছে। প্রয়োজনে শুকনো খাবার খেতে হবে।

এর আগে, বুধবার সকাল সাড়ে নয়টার সময় হঠাৎ করে বিকট শব্দে ‍ওই কূপ থেকে গ্যাস নির্গত হতে থাকে। এতে হুমকির মুখে পড়েছে বিদ্যালয়ের দুটি ভবন। শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে বিদ্যালয়।

বায়েক ইউপি চেয়ারম্যান ও সোনার বাংলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আল মামুন ভূঁইয়া জানান, বিদ্যালয়ের পুরাতন টিউবওয়েলটি কাজ না করায় সরকারিভাবে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে একটি টিউবওয়েল বসানোর কাজ করছিল শ্রমিকরা।

আরও পড়ুনঃ স্ত্রীর দাফনের পরই স্বামীর মৃত্যু

গত তিন দিনে প্রায় সাড়ে নয়শত ফুট বোরিং করার পর বালি এবং পানির লেয়ার পাওয়ায় ফিল্টার পাইপ লাগানোর জন্য পাইপ উপরের দিকে তুলছিল। আনুমানিক দেড়শত ফুট উপরে তুলার পর হঠাৎ করে বিকট শব্দে গ্যাস উঠতে থাকে।

প্রথমদিকে প্রায় ৬০-৭০ উপরে উঠতে থাকে গ্যাস এবং বালু ও পানি। এই অবস্থায় টিউবওয়েল মিস্ত্রিরা ভয়ে দূরে সরে যায়। গ্যাসের সাথে নিচের বালু উঠে আসার কারণে দুটি ভবন এখন হুমকির মুখে।

প্রচণ্ড বেগে নিচ থেকে গ্যাস, বালু এবং পানি উঠার কারণে একটি ভবন অর্ধেক বালির নিচে চলে গেছে অপর ভবনটির মধ্যে হালকা কাঁপুনি অনুভূত হয়।

বালি এবং পানিতে বিদ্যালয়ের মাঠ একাকার হয়ে গেছে। এমতাবস্তায় শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা ভেবে বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap