গত ১০ মাসে ১ দিন স্কুলে উপস্থিত এমপির স্ত্রী! - Metronews24গত ১০ মাসে ১ দিন স্কুলে উপস্থিত এমপির স্ত্রী! - Metronews24

গত ১০ মাসে ১ দিন স্কুলে উপস্থিত এমপির স্ত্রী!

At Tigheria Government Primary School

সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ডেপুটেশনে আসা শিক্ষিকা ও সুনামগঞ্জ ১ (তাহিরপুর, জামালগঞ্জ, ধর্মপাশা)আসনের এমপি রতনের দ্বিতীয় স্ত্রী তানভী ঝুমুরকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

গত ১০ মাস স্কুলে অনুপস্থিত থাকায় তাকে গত ৭ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জ থমিক শিক্ষা অফিস থেকে এ বরখাস্ত করা হয়।

অপরদিকে একই দিনে তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের গোলকপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে গত ৫ বছর আগে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার ষোলগড় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ডিপোটশনে আসা শাহিমা খাতুন নামে অপর এক শিক্ষিকাকেও ডেপুটেশন প্রত্যাহার করে গোলকপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যোগদান করার জন্য বলা হয়েছে।

বিষয় দুটি নিশ্চিত করে তাহিরপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো.আকিকুর রেজা খান বলেছেন, শিক্ষিকা তানভী ঝুমুরকে গত ৮ জানুয়ারি থেকে সাময়িক বরখাস্ত দেখানো হয়েছে এবং শিক্ষিকা শাহিমা খাতুনের ডেপুটেশন প্রত্যাহার করে গোলকপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যোগদান করার জন্য বলা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ টাকার বান্ডিলের উপর ঘুমানো নিয়ে যা বলল সেই এসআই

প্রসঙ্গত, সুনামগঞ্জ-১ আসনের এমপি মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের দ্বিতীয় স্ত্রী তানভী ঝুমুর তাহিরপুর উপজেলা থেকে ডেপুটেশনে এসে বর্তমানে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যোগ দেন। কিন্তু গত ১০ মাস ধরে স্কুলে আসেনি তিনি।

এক দিনের ছুটি নিয়ে স্কুল ছেড়ে দীর্ঘ সময় ধরে অনুপস্থিত ছিলেন তিনি। তবে স্কুলে না এলেও বেতন ঠিকই তুলে নিচ্ছেন তানভী।

বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচার হলে সুনামগঞ্জ জেলা শিক্ষা অফিসের নজরে আসলে তানভী ঝুমুরকে এ বছরের গত ৮ জানুয়ারি থেকে সাময়িক বরখাস্ত দেখানো হয়।

সূত্রে জানা যায়, তানভী ঝুমুর শিক্ষিকা হিসেবে নিয়োগ পান তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের তরং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। প্রাথমিক শিক্ষা দফতরে তদবির করে তিনি ডেপুটেশনে আসেন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।

চলতি বছরের ৭ জানুয়ারি অসুস্থতাজনিত কারণ দেখিয়ে একদিনের ছুটি নেন তিনি। কিন্তু এরপর থেকে আর স্কুলে আসেননি। তানভী ঝুমুর তাহিপুর উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের মৃত আবুল কাশেমের মেয়ে।

Facebook Comments
0