ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপে সক্ষম রণতরী উদ্বোধন করছে ইরান

Rear Admiral Alireza Tangsiri

ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র নৌশাখার কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল আলীরেজা তাংসিরি বলেছেন, ফার্সি ১৪০০ সালে তার বাহিনী ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপে সক্ষম একটি রণতরী উদ্বোধন করবে। এরই মধ্যে রণতরীটির নাম দেওয়া হয়েছে লে. জেনারেল শহীদ কাসেম সোলাইমানি।

আগামী ২০ মার্চ ফার্সি ১৩৯৯ সালের সমাপ্তি হবে এবং রবিবার থেকে ১৪০০ সাল শুরু হবে। আইআরজিসি’র নৌশাখার কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল আলীরেজা তাংসিরি টেলিভিশনের এক টক-শো’তে বলেন, তার বাহিনী ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এই রণতরী নির্মাণ করছে।

রণতরীটি ৪৫ নটিক্যাল মাইল বেগে চলতে সক্ষম জানিয়ে তিনি বলেন, এই রণতরী থেকে ‘ভূমি থেকে ভূমিতে’, ‘ভূমি থেকে আকাশে’ এবং ‘আকাশ থেকে ভূমিতে’ নিক্ষেপযোগ্য নানা ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা যাবে। এর ফলে ইরানের নৌবাহিনীর রণ-সক্ষমতা বহুগুণে বেড়ে যাবে।

অ্যাডমিরাল তাংসিরি বলেন, ফার্সি ১৪০০ সালে এ ধরনের জটিল ৩ টি জাহাজ আইআরজিসি’র নৌবাহিনীতে যুক্ত হবে। এগুলোর একটির নাম দেওয়া হবে ‘আবু মাহদি আল-মুহান্দিস’।

আরও পড়ুনঃ  সমকামিতা ‘পাপ’, সমলিঙ্গের সম্পর্ককে কখনোই আশীর্বাদ নয়ঃ পোপ ফ্রান্সিস

২০২০ সালের ৩ জানুয়ারি ভোরে ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে ড্রোন থেকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে ইরানের কুদস ফোর্সের তৎকালীন কমান্ডার লে. জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যা করে মার্কিন সেনারা।

ওই হামলায় কাসেম সোলায়মানির সঙ্গে ইরাকের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হাশদ আশ-শাবির উপপ্রধান আবু মাহদি আল-মুহান্দিসসহ ১০ জন নিহত হন।

 

সূত্র: পার্সটুডে