ক্রমেই ধেয়ে আসছে গ্রহাণু,সংঘর্ষ হলে ধ্বংস হবে মানবসভ্যতা - Metronews24 ক্রমেই ধেয়ে আসছে গ্রহাণু,সংঘর্ষ হলে ধ্বংস হবে মানবসভ্যতা - Metronews24

ক্রমেই ধেয়ে আসছে গ্রহাণু,সংঘর্ষ হলে ধ্বংস হবে মানবসভ্যতা

NASA tracking mammoth asteroid that could end

পৃথিবী ধ্বংস হয়ে যেতে পারে। এই খবর মাঝে মাঝেই ছড়িয়ে পড়ে ইন্টারনেটে। তবে এবার সতর্ক করল মার্কিন গবেষণা সংস্থা নাসা।

মহাকাশে একটি গ্রহাণু পৃথিবীতে আছড়ে পড়তে পারে। তা ঘটলে কয়েক মুহূর্তে ধ্বংস হয়ে যাবে মানবসভ্যতা।

ব্রিটেনের এক্সপ্রেস নিউজ-এর খবর অনুযায়ী, নাসা জানিয়েছে, এই গ্রহাণুটি আয়তনে ৪ কিলোমিটার। প্রতি ঘণ্টায় ৩১ হাজার ৩২০ কিমি গতিতে এগিয়ে আসছে। এই গতিতে এগিয়ে আসতে থাকলে ২৯ এপ্রিল পৃথিবীর কাছে চলে আসবে।

নাসা জানিয়েছে, পৃথিবীর খুব কাছে আসবে গ্রহাণুটি। কোনওভাবে পৃথিবীর সঙ্গে সংঘর্ষ হলে গোটা মানবসভ্যতা কয়েক সেকেন্ডে ধ্বংস হয়ে যাবে।

নাসার বিজ্ঞানীরা বলছেন, প্রতি ১০০ বছরে ৫০ হাজারের মধ্যে ১ বার পৃথিবীতে গ্রহাণু আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা থাকে। যদি এই গ্রহাণুটি পৃথিবীতে আছড়ে পড়ে তাহলে মানবসভ্যতা শেষ হয়ে যাবে।

ইন্টারন্যাশনাল গ্রুপ অব অ্যাস্ট্রোনমারস-এর সদস্য ব্রুস বেটস-এর কথায়, ‘ছোট ছোট গ্রহাণু মাঝে মাঝে পৃথিবীর কাছে আসে। অ্যাটমোস্ফিয়ারেই ধ্বংস হয়ে যায় সেগুলো। কিন্তু এই গ্রহাণুটি বড়।’

আরও পড়ুনঃবিয়ের প্রলোভনে দৈহিক সম্পর্ক,প্রেমিকা দেখেই পলাল

২০১৮ সালেও একটি বড় গ্রহাণু পৃথিবীতে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল। তবে সেটি কান ঘেঁষে বেরিয়ে যায়।

এই মুহূর্তে গ্রহাণুটি পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্ব যতটা, তার চেয়ে ১৬ গুণ বেশি দূরে রয়েছে পৃথিবী থেকে। ব্রেটস-এর কথায়, ‘কিছু গ্রহাণু পৃথিবীর কাছাকাছি ঘুরে বেড়াচ্ছে। তবে সেগুলোর পৃথিবীতে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা কম।’ সূত্র: নিউজ১৮