ক্যান্সার ও ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে কাঁকরোল

momordica dioica

কাঁকরোলের সঙ্গে পরিচিত রয়েছি আমরা সবাই। সারা গায়ে কাঁটাযুক্ত ছোট ছোট গোলাকার আকৃতির এই সবজিটি খেতে অনেকেই পছন্দ করেন। জেনে নেওয়া যাক, কী গুণ আছে এই সবজিতে-

১০০ গ্রাম কাঁকরোলে মাত্র ১৭ ক্যালরি থাকে। তাই ওজন কমাতে কাঁকরোল খেতে পারেন। হজম শক্তিও বাড়ায় কাঁকরোল।

এছাড়া এটি একটি লো ক্যালরির সবজি এবং এতে ফাইবার থাকায় দীর্ঘক্ষণ পেট ভরা রাখতে সাহায্য করে।

কাশি কমাতে-ঋতু পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে বা ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণে ছোট বাচ্চাদেরও কাশির সমস্যা দেখা দেয়।

তাই বাচ্চাদের অ্যালার্জি এবং অন্য কোনো সমস্যা দেখা দিলে কাঁকরোল খাওয়ালে অনেক রোগের হাত থেকে রেহাই পাওয়া যায়।

কাঁকরোলে রয়েছে হাইপোগ্লাইসেমিক গুণাগুণ। এটি অগ্নাশয়ের বিটাসেলকে সুরক্ষিত রাখে ও পুনর্গঠনে সাহায্য করে। এ ছাড়া এটি ইনসুলিন নিঃসরণ ও সংবেদনশীলতা বাড়ায়, যা ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।

আরও পড়ুনঃ চালে পোকা ধরেছে? দূর করার উপায় জেনে নিন

কাঁকরোল কম ক্যালরির ও ফাইবারসমৃদ্ধ খাবার। তাই এটি রক্তের গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। এটি উচ্চমাত্রার কলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। তাই যাদের কলেস্টেরলের মাত্রা বেশি তারা আগ্রহ করে কাঁকরোল খেতে পারেন।

এছাড়াও রক্তে শর্করার পরিমাণ কমাতে এবং বহুমুত্র রোগীদের রোগ সারাতে একটি উপকারি সবজির নাম কাঁকরোল। সুগারের রোগীদের প্রতিদিনের ডায়েটে কাঁকরোলের বিভিন্ন পদ থাকা আবশ্যক বলছেন চিকিৎসকরা।

 

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap