কুমারডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভবন নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ

narail lohagara

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ইতনা ইউনিয়নের ৮৪ নং কুমারডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণ কাজে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।
গ্রামবাসীসহ বিদ্যালয় সংশ্লিষ্টদের অভিযোগে জানা গেছে, চলতি বছর ১৪ ফেব্রুয়ারি ইতনা ইউনিয়নের ৮৪ নং কুমারডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবনের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন দুর্নীতি দমন কমিশনের কমিশার(তদন্ত) এ,এফ,এম আমিনুল ইসলাম।

সূত্র জানায়, প্রায় ৬৩ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের অর্থায়নে এলজিইডি লোহাগড়া প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে। কুমারডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক কাজী আল হেলাল, ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড(কুমারডাঙ্গা) মেম্বর মোঃ আল-আমিন শেখ, দাতা সদস্য মোঃ আজিম শেখ, প্রতিবেশী জিন্নাত শেখ সহ গ্রামবাসীরা অভিযোগ করেন, ভবনটি নির্মাণের শুরুতেই অনিয়ম করা হচ্ছে। ভাল মানের বালি দেবার কথা থাকলেও নিন্মমানের বালি দিয়ে ভিত্তির কাজ করা হয়েছে।

ব্যাকা-ত্যাড়া ভাবে দায়সারা গোছের ভবণের ভিত্তির কাজ করা হয়েছে। কার্যাদেশ অনুয়ায়ি বালির সাথে সিমেন্ট এর মিশ্রণ যা দেবার কথা দেয়া হয়েছে অনেক কম। কাজের অনিয়মের কারনে স্থানীয় লোকজন বাঁধা প্রদান করলেও ঠিকাদার বা তার সহযোগিরা শুনছেন না। এলাকার মানুষের দাবি এলজিইডি লোহাগড়ার প্রকৌশলীর উপস্থিতিতে কাজের মান যাচাই করে বাকি নির্মাণ কাজ করা হোক। বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতিও নির্মাণাধীন ভবনের কাজের মান নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে পাওয়া না গেলেও ঠিকাদারের প্রধান মিস্ত্রি হাবিব খান বলেন, চারতলা ফাউন্ডেশনের এ ভবনটির আপাতত দেড়তলার নির্মাণ কাজ করা হবে। কার্যাদেশ মোতাবেকই কাজ হচ্ছে। এলজিইডি লোহাগড়ার প্রকৌশলী (অঃদঃ) অভিজিৎ মজুমদার এ বিষয়ে বলেন, আমি গ্রেটভীম পর্যন্ত কাজ দেখেছি। কাজের মান ঠিক আছে। আমি পুনরায় গিয়ে কাজের তদারকি করবো।

ইকবাল হাসান,নড়াইল প্রতিনিধ