করোনার ঝুঁকি এড়াতে ডায়াবেটিস রোগীরা যা খাবেন

diabetes patient food

পৃথিবীজুরে করোনাভাইরাসের মহামারির প্রাদুর্ভাব । ডায়াবেটিস এমনিতেই চিন্তার কারণ। এবছর সেই চিন্তা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে করোনাভাইরাস। ডায়াবেটিস কিংবা হৃদরোগ রয়েছে এমন ব্যক্তিদের আরও বেশি সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

সুস্থ থাকার জন্য বাড়িয়ে তুলতে হবে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। সেজন্য খেতে হবে সঠিক ও পুষ্টিকর খাবার।

ডায়াবেটিসের রোগীদের খাবারের ক্ষেত্রে নানা বিধি-নিষেধ থাকে। তাই তাদের খাবার নির্বাচনে মনোযোগী হওয়া জরুরি। কিছু খাবার বাদ দিয়ে কিছু খাবার যোগ করতে হবে খাবারের তালিকায়।

আপনি যদি ডায়াবেটিসের রোগী হন তবে ভাত, রুটি, মুড়ি ইত্যাদি খাবার কমিয়ে খেতে হবে। ফল, সবজি খেতে হবে বেশি করে। এছাড়াও খাবার খাওয়ার সময় মেনে চলতে হবে আরও কিছু নিয়ম-

ঠিক সময়ে খাওয়া

বাড়িতে যতক্ষণই থাকুন, খাওয়ার ওপরে থাকবেন না। খেতে হবে নিয়ম মেনে, সঠিক সময়ে। বাড়ির তৈরি খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। ঘুম থেকে ওঠার ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই সেরে নিন সকালের খাবার।

৩-৪ ঘণ্টা পরপর অল্প করে খাবার খান। যাদের সুগার থাকে তাদের খালি পেটে একদমই থাকা উচিত নয়। কার্বোহাইড্রেট মেপে খান। দুপুর বা রাতের খাবার বাদ দেবেন না।

শস্যদানা

খাবারের তালিকায় শস্যদানা রাখুন বেশি। গম, যব, তিসি, ডাল ইত্যাদি। এগুলো থেকে আপনি প্রচুর এনার্জি পাবেন। এছাড়াও শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় ভিটামিন, খনিজ পাবেন এই শস্যদানা থেকে। যা রক্তের শর্করাকে রাখবে নিয়ন্ত্রণে।

প্রোটিন

প্রোটিন আমাদের শরীর সুস্থ রাখতে ভীষণ জরুরি। তাই ছানা, দুধ, মুরগির মাংস, কুসুম ছাড়া ডিম এসব রাখুন খাদ্য তালিকায়। চর্বি নেই এমন মাছও রাখুন পাতে। ইলিশ, চিতল, শঙ্কর মাছ এড়িয়ে চলুন। একদম লো ফ্যাট দুধ, টকদই এসব খেতে পারেন।

আরও  পড়ুনঃ ঘরেই তৈরি করতে পারেন গাজরের সন্দেশ

সবজি ও ফল

প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় রাখুন প্রচুর সবজি আর ফল। কারণ সবজিতে থাকে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। অহেতুক দামি ফল কিংবা সবজি নয়। বাজারে যা পাওয়া যাচ্ছে তাই খান। কিউই, ড্রাগন ফ্রুট এসবের দিকে ঝুঁকবেন না। ফল ও সবজিতে থাকে প্রচুর ফাইবার। ফলে সুগারের মাত্রাও থাকে নিয়ন্ত্রণে।

diabetes patient food

বাদাম ও সাদা তেল

বাদাম তেল, তিসির তেল, সূর্যমুখীর তেল, রাইস ব্র্যান অয়েল এসব খেতে পারেন। এসবের মধ্যে থাকে স্যাচুরেটেড ফ্যাট আর কার্বোহাইড্রেটস। যা ইনসুলিন নিয়ন্ত্রণে রাখে। সপ্তাহে তিনদিন আমন্ড, আখরোট এসব মিশিয়ে খান। এতে সুস্থ থাকবে হার্টও।