কমলগঞ্জে গুড নেইবারস বাংলাদেশ কর্তৃক বিনামূল্যে ৮৫০ পরিবারকে শিশু খাদ্য ও ঈদ বস্ত্র বিতরণ - Metronews24 কমলগঞ্জে গুড নেইবারস বাংলাদেশ কর্তৃক বিনামূল্যে ৮৫০ পরিবারকে শিশু খাদ্য ও ঈদ বস্ত্র বিতরণ - Metronews24

কমলগঞ্জে গুড নেইবারস বাংলাদেশ কর্তৃক বিনামূল্যে ৮৫০ পরিবারকে শিশু খাদ্য ও ঈদ বস্ত্র বিতরণ

Kamalgonj

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা গুড নেইবারস বাংলাদেশ মৌলভীবাজার সিডিপি’র উদ্যোগে “গুড বাজার জিএনবি” এর মাধ্যমে ৮৫০ জন শিশু পরিবারের মধ্যে পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষ্যে খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ বস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।

সোমবার  দুপুরে সংস্থার আদমপুরস্থ কার্যালয়ের সম্মুখে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে শুভ উদ্বোধন করেন কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান।
ব্যতিক্রমী গুড বাজারের মাধ্যমে কোভিড-১৯ এর কারনে ৮৫০জন অসহায় শিশু পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ বস্ত্র বিতরন করা হয়।

যার মধ্যে ছিল চাল ৬ কেজি, পোলাও চাল ১ কেজি, লবন ১ কেজি, সয়াবির তেল ১ লিটার, সেমাই ১ প্যাকেট, চিনি ১ কেজি, আলু ১ কেজি, পিয়াজ ১ কেজি, দুধ ২৫০ গ্রাম, ব্যাকট্রল সাবান ২টি, জিঙ্ক ও সি ভিট ট্যাবলেট, শাড়ি, লুঙ্গি, গেঞ্জি, মেহেদি, চুলের ব্যান্ড ও বাচ্চাদের জন্য খেলনা।

যারা এই সাহায্য নেয় তারা তাদের চাহিদা অনুসারে বিনামূল্যে তাদের পছন্দের পণ্যটি গুড নেইবারস বাংলাদেশ মৌলভীবাজার গুড বাজার থেকে সংগ্রহ করে আনন্দ সহকারে হাঁসতে হাঁসতে প্রস্থান করে।

তিনদিনের এই বাজার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আবদাল হোসেন, কমলগঞ্জ থানার এসআই মোঃ সিরাজুল ইসলাম, আদমপুর ইউপি সদস্য কে মনিন্দ্র কুমার সিংহ, গুড নেইবারস বাংলাদেশ মৌলভীবাজার সিডিপি’র ব্যবস্থাপক রোমিও রতন গমেজ, প্রোগ্রাম ইনচার্জ প্রবীর নকরেক, হেলথ অফিসার মহাদেব রায় নিশান, আইজি অফিসার রবিন্দ্র শীল ও কমিউনিটি এ্যাকশন টিমের সদস্য বৃন্দ।

উল্লেখ্য, বাজারের কার্যক্রম চলবে আগামী ২৯ জুলাই পর্যন্ত। মোট ১৪ শ পরিবারকে ত্রাণ সামগ্রী প্রদান করা হবে বলে গুড নেইবারস মৌলভীবাজার সিডিপি সূত্রে জানা যায়।
কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান বলেন, এটি একটি ভাল উদ্যোগ। তিনি আরও বলেন বিষয়টি যেন অব্যাহত থাকে।

এম এ কাদির চৌধুরী ফারহান/মৌলভীবাজার

Saifuzzaman Revolution

অবশেষে ছেলে সন্তানের বাবা হলেন মেডিকেল

Sex is always in the name of friendship

বহু প্রজাতির "জীব সম্প্রদায়" আছে সে

graphology

পড়েই বুঝে ফেলল আপনার পার্সোনালিটি সম্পর্কে। কি চমকে গেলেন? সে  কিভাবে বুঝলো? ভাবছেন ,সে শার্লক হোমসগোছের কেউ?  নাহ্.. এর জন্য শার্লক হোমস হওয়ার প্রয়োজন নেই। হাতের লেখার মাধ্যমে একজন মানুষের ব্যক্তিত্ব সম্পর্কেঅনেকাংশে ধারণা করা যায়।  হাতের লেখা নিয়ে গবেষণার এই ক্ষেত্রটি  গ্রাফোলজি/ গ্রাফোঅ্যানালাইসিস নামে পরিচিত। এরসাধ্যমে একজন মানুষের হাতের লেখা দিয়ে লেখকের ব্যক্তিত্ব এবং লেখার সময়ে ঐ লেখকের মানসিক অবস্থা সম্পর্কে ধারণাকরা সম্ভব।গ্রাফোলজি হলো বিশ্লেষণমূলক একটা বিষয় সেখানে দেখা হয় লেখার মূহুর্ত পর্যন্ত ব্যক্তির অবস্থাঃ কিভাবে চিন্তাকরে, অনুভব করে এবং আচরণ করে নিজ ও অন্যের সাথে। হাতের লেখা লেখকের  সত্যিকারের পরিচয় বা ব্যক্তিত্ব  ফুটে তুলে।আমরা যা লিখি তা আমাদের সচেতন মন থেকে হয় কিন্তু যেই পদ্ধতিতে বা যেইভাবে  লিখি সেটা আমাদের অচেতন মন এরবিষয় ফুটিয়ে তুলে। গ্রাফোলজির ব্যবহারঃ   নিজেকে বোঝা,একটি জীবন সঙ্গী নির্বাচন  ,শিশুর উন্নয়ন/ বিকাশ,ব্যবসায়িক অংশীদার নির্বাচন করা,কর্মচারী নিয়োগ,ম্যানেজমেন্ট নির্বাচন,কর্পোরেট প্রশিক্ষণ,নথিপরীক্ষা এবং ফরেনসিক বিশ্লেষণ সুরক্ষা যাচাই করা এবং সততা ও নিষ্ঠার মূল্যায়ন।

dog

ছেলের সঙ্গে প্রায়ই ঝগড়া লেগে থাকত।