কচুরিপানার ভেতরে চাচি-ভাতিজির লাশ

The body of aunt and niece inside the water hyacinth

নিখোঁজের দুইদিন পর নরসিংদীতে ডোবা থেকে সেলিনা বেগম (৪০) নামে এক গৃহবধূ ও হাফসা আক্তার নামে তার দেড় বছরের ভাতিজির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার (১৬ আগস্ট) বিকেলে জেলা শহরের বিলাসদীর আল্লাহ চত্বর এলাকার রেললাইনের পাশের একটি ডোবা থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মৃত সেলিনা বেগম ওই এলাকার মাসুদ মিয়ার স্ত্রী ও হাফসা জহিরুল ইসলামের মেয়ে।

স্থানীয়রা জানায়, গত শুক্রবার (১৪ আগস্ট) সকালে দেবরের মেয়ে হাফসাকে কোলে নিয়ে হাঁটতে বের হন চাচি সেলিনা। এরপর তারা আর ফেরেননি। পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজি ও মাইকিং করে তাদের কোনো সন্ধান না পেয়ে শুক্রবার রাতেই নরসিংদী সদর মডেল থানায় জিডি করেন। রোববার দুপুরে বাড়ি থেকে ৪০০ গজ দূরের একটি ডোবা থেকে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়ে।

লোকজন ডোবায় কচুরিপানার ভেতর মরদেহ ভেসে থাকতে দেখে থানায় খবর দেয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ।

খবর পেয়ে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) ও পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সেলিনা মৃগী রোগে আক্রান্ত ছিলেন। প্রতিদিন সকালে তিনি হাঁটতে বের হতেন। হাঁটতে বের হয়ে তিনি রেললাইন, ডোবা বা পুকুর থেকে বিভিন্ন ধরনের শাক-লতা-পাতা সংগ্রহ করতেন।

আরও পড়ুনঃবিপৎসীমার ওপরে ৪ নদীর ৪ পয়েন্টে পানি

নরসিংদী মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার দত্ত বলেন, ওই নারী ও শিশুর শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন দেখে তাদের মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap