কখনো খেয়েছেন চিড়ার তৈরি মুখরোচক সমুচা ?

somocha

চিড়া খেতে সবাই কম-বেশি পছন্দ করেন। অবসরে খাবারটি খেলে সময় বেশ ভালোই কাটে। চিড়া দিয়ে নানা পদ তৈরি করা যায়। অনেকেই হয়তো চিড়ার তৈরি বিভিন্ন পদ খেয়েছেন! তবে কখনো কি চিড়ার তৈরি সমুচা খেয়েছেন? মুখরোচক এ স্ন্যাকসটি বিকেলের নাস্তা থেকে শুরু করে অতিথি আপ্যায়নে বেশ মানিয়ে যায়।

এ রেসিপি তৈরি করতে সময় খুবই কম লাগে। হাতের কাছে থাকা কয়েকটি উপকরণ দিয়েই তৈরি করা সম্ভব সুস্বাদু এই চিড়ার সমুচা-

উপকরণ

১. এক কাপ চিড়া

২. সমুচার পেটি ৮টি

৩. ২টি পেঁয়াজ কুচি

৪. পরিমাণমতো লবণ

৫. এক চা চামচ মরিচের গুঁড়া

৬. এক চা চামচ চাট মশলার গুঁড়া

৭. এক টেবিল চামচ ধনেপাতা কুচি

৮. আস্ত জিরা এক চা চামচ

৯. জিরার গুঁড়া এক চা চামচ

১০. এক চিমটি চিনি

১১. কাচা মরিচ কুচি

১২. এক চা চামচ আদা কুচি

১৩. ময়দা ২ টেবিল চামচ

আরও পড়ুনঃ বাড়িতেই তৈরি করুন ক্রিস্পি বেগুন ফিংগার!

পদ্ধতি

প্রথমে সমুচার পুর তৈরি করার পালা। এজন্য চিড়ার সঙ্গে সব উপকরণ যেমন- লবণ, মরিচের গুঁড়া, চাট মশলা একসঙ্গে একটি পাত্রে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে।

এরপর একে একে ধনেপাতা কুচি, আস্ত জিরা, জিরার গুঁড়া, চিনি ও কাচা মরিচ কুচির সঙ্গে সামান্য পানি দিয়ে ভালোভাবে সব উপকরণ মিশিয়ে নিয়ে চিড়ার পুর তৈরি করতে হবে।

এবার একটি প্যানে পরিমাণমতো তেল হালকা আঁচে গরম করতে থাকুন। পাশাপাশি ময়দার সঙ্গে সামান্য পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন।

সমুচার পেটি ময়দার পেস্ট দিয়ে ৩ কোণা আকৃতির তৈরি করুন। এবার এর মধ্যে পুর ভরে পুনরায় ময়দার মিশ্রণের সাহায্যে সমুচার মুখ বন্ধ করে দিন।

এদিকে প্যানে গরম হওয়া তেলের মধ্যে সমুচাগুলো ছেড়ে দিন। হালকা আঁচে ভাজতে থাকুন। একপাশ হালকা বাদামি রঙা হলে অপর পাশ উল্টে দিন।

এভাবেই তৈরি হয়ে যাবে মুচমুচে সমুচা। সবগুলো সমুচা ভাজা হয়ে গেলে গরম গরম একটি সার্ভিং বলে পরিবেশন করুন। টমেটো সস ও ধনেপাতার চাটনি দিয়ে পরিবেশন করতে ভুলবেন না যেন!