ওয়াই-ফাইয়ের গতি বাড়ানোর উপায়

wifi speed increase

একাধিক ব্যক্তি মিলে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে চাইলে ওয়াই-ফাইয়ের কোনো বিকল্প নেই। স্মার্টফোন কিংবা ল্যাপটপেও হটস্পট করে ব্যবহার করা গেলেও সেটি অস্থায়ী। স্থায়ী হলো ওয়াই-ফাই সংযোগ।

ওয়াই-ফাইয়ের ইন্টারনেট গতি দুর্বল হলে কিংবা রাউটার ঠিকঠাক কাজ না করলে অনেকেই দুশ্চিন্তায় পড়ে যান। তবে চিন্তার কিছু নেই। কিছু পদ্ধতি অনুসরণ করে ওয়াই-ফাইয়ের ইন্টারনেট সংযোগটি শক্তিশালী করতে পারেন।

  • ওয়াই-ফাই ব্যবহার করলে যেকোনো ভালো মানের রাউটার ব্যবহার করুন। সেটি হতে পারে ডাবল অ্যান্টেনা বা মাল্টি অ্যান্টেনা। রাউটারটি ২.৪ গিগাহার্জ থেকে ৫ গিগাহার্জ এবং ৮০২.১১ এসি কিংবা ৮০২.১১ এন স্ট্যান্ডার্ডের কি না, তা দেখে নেওয়া ভালো।
  • ওয়াই-ফাই রাউটারটিকে বাড়ির একটি মাঝামাঝি স্থানে রাখুন, যাতে বাড়ির সর্বত্রই সহজে ইন্টারনেট সংযোগ সমানভাবে পায়।
  • আপনি বাড়ির এমন একটি অংশে রয়েছেন, যেখান থেকে রাউটার অনেকটাই নিচে রয়েছে। এ অবস্থায় রাউটারের ২.৪ গিগাহার্জের চ্যানেল ব্যবহার করুন।
  • দেখা যায় অনেক সময় যেকোনো অপারেটিং সিস্টেমের ডেস্কটপ কম্পিউটারের সঙ্গে ওয়াই-ফাই রাউটারটি ঠিকমতো সংযোগ স্থাপন করতে পারে না বা মাঝেমধ্যে ছেড়ে দেয়। সে ক্ষেত্রে পিএলআইএসটি জাতীয় ফাইলগুলো ডিলিট করলে সমাধান পাওয়া যাবে।
  •  যে ওয়াই-ফাই রাউটার ব্যবহার করবেন সেটিও একটি ড্রাইভার সফটওয়্যারের মাধ্যমে কার্য সম্পাদন করে থাকে। তাই সময়ে সময়ে রাউটারের ড্রাইভার সফটওয়্যার আপডেটে নজর দিতে হবে। আপডেটের ব্যাপারে জানতে রাউটারের কম্পানির অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে নজর রাখুন।

আরও পড়ুনঃ বাংলাদেশকে নিয়ে বিপাকে পড়েছে ফেসবুক

  • কর্ডলেস ফোনের কানেকশন, মাইক্রোওয়েভ কিংবা ব্লুটুথের জন্য অনেক সময় ওয়াই-ফাই রাউটার সঠিকভাবে কাজ সম্পন্ন করতে পারে না। এ ক্ষেত্রে ডাবল রাউটার ব্যবহার করলে সমস্যা অনেকটাই কমে যাবে।