ইসরায়েলের সমালোচনা করায় রুশ রাষ্ট্রদূতকে তলব,যা বলছে মস্কো

maria vladimirovna zakharova

তেল আবিবে নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে ইসরায়েল। ইহুদিবাদী ইসরায়েলের সমালোচনা করে বক্তব্য দেওয়ায় ওই রাষ্ট্রদূতকে ইসরায়েলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ডেকে পাঠায়।

এরপর নিজ দেশের রাষ্ট্রদূতের প্রতি সমর্থন জানায় রাশিয়া। রাশিয়া বলেছে, তার রাষ্ট্রদূত মস্কোর মধ্যপ্রাচ্যবিষয়ক ঘোষিত নীতি অনুসরণ করেই বক্তব্য রেখেছেন।

তেল আবিবে নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত আনাতোলি বিক্তোরভ গত ৮ ডিসেম্বর জেরুজালেম পোস্টকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ফিলিস্তিনি ও আরব দেশগুলোর সঙ্গে ইসরায়েলের সাংঘর্ষিক অবস্থান হচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিতিশীলতা মূল কারণ; এই অস্থিতিশীলতা সৃষ্টিতে ইরানের কোনো ভূমিকা নেই।

তিনি বলেন, “মধ্যপ্রাচ্যের মূল সমস্যা ইরানের কার্যকলাপ নয়; বরং আরব-ইসরায়েল ও ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘর্ষ নিয়ে জাতিসংঘের প্রস্তাবগুলো উপলব্ধি করতে সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর ব্যর্থতার কারণেই মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি হয়েছে।”

সিরিয়ায় বিমান হামলা চালিয়ে ইসরাইল মধ্যপ্রাচ্যে সহিংসতায় উসকানি দিচ্ছে বলেও রুশ রাষ্ট্রদূত উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, “ইসরায়েল হিজবুল্লাহর ওপর হামলা চালাচ্ছে, হিজবুল্লাহ ইসরায়েলে হামলা চালাচ্ছে না।”

জাতিসংঘের সদস্যভুক্ত স্বাধীন দেশগুলোতে হামলা চালানো ইসরায়েলের উচিত নয় বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

ওই সাক্ষাৎকার দেওয়ার কারণে ইসরায়েলি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিক্তোরভকে তলব করে তাকে ‘তীব্র ভাষায় ভর্ৎসনা’ করে।

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বলেছেন, তার দেশের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে তেল আবিব অতিমাত্রায় সংবেদনশীলতা দেখিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ চীনের বন্দরে গিয়ে বিপাকে পড়েছে ৩৯ ভারতীয় নাবিক

তিনি বলেন, “রাশিয়া বিশ্বাস করে মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা করতে হলে ফিলিস্তিনি সংকটের সমাধান করতে হবে। এ লক্ষ্য বাস্তবায়ন করতে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করতে প্রস্তুত রাশিয়া।”

 

সূত্র: পার্সটুডে