ইরান থেকে গিয়েই সুর পাল্টালেন আইএইএ মহাপরিচালক

Iran and watchdog reach deal over nuclear site monitoring

ইরান থেকে গিয়েই সুর পাল্টালেন আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থা (আইএইএ) এর মহাপরিচালক রাফায়েল গ্রোসি। তেহরান সফর শেষ করে ভিয়েনায় পৌঁছেই আবার অভিযোগ উত্থাপন করেছেন তিনি।

সোমবার আইএইএ’র নির্বাহী বোর্ডের বৈঠকে তিনি দাবি করেছেন, ইরানের ৪টি অঘোষিত স্থানে পারমাণবিক উপাদান পাওয়া গেছে এবং এ সম্পর্কে তার সংস্থার প্রশ্নের উত্তর দেয়নি তেহরান।

সোমবার শুরু হওয়া নির্বাহী বোর্ডের বার্ষিক এ বৈঠক এক সপ্তাহ ধরে চলবে। গ্রোসি তার বক্তব্যে দাবি করেন, ওই ৪ স্থানের একটিতে প্রাকৃতিক ইউরেনিয়াম এবং বাকি ৩ টিতে পরিবর্তিত ইউরেনিয়াম পাওয়া গেছে।

রাফায়েল গ্রোসি এমন সময় ইরানের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করলেন যখন রবিবার তার তেহরান সফরে ইরানের পরমাণু কেন্দ্রগুলোতে স্থাপিত আইএইএ’র পর্যবেক্ষণ ক্যামেরাগুলো সার্ভিস করার পাশাপাশি এগুলোর মেমোরি কার্ড প্রতিস্থাপন করতে সম্মত হয় দু’পক্ষ।

ইরানের আণবিক শক্তি সংস্থার প্রধান মোহাম্মাদ ইসলামির সঙ্গে গ্রোসির সাক্ষাতের পর দুই কর্মকর্তা এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে ওই সমঝোতার কথা জানান। তারা বলেন, দু’পক্ষ এনপিটি চুক্তির সম্পূরক প্রটোকলের আওতায় পারস্পরিক সহযোগিতার ব্যাপারে আলোচনা চালিয়ে যেতে সম্মত হয়েছে। গ্রোসি এ সমঝোতার ব্যাপারে ব্যাপক উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে তেহরান ত্যাগ করেন।

আরও পড়ুনঃ প্রথমবার বিদেশি অতিথির সঙ্গে বৈঠক করলেন তালেবান প্রধানমন্ত্রী

ভিয়েনায় গত এপ্রিল থেকে ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে ইরানের পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের যে সংলাপ চলছে তা ফলপ্রসূ করার জন্য আইএইএ’র সঙ্গে তেহরানের এ সমঝোতাকে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

আমেরিকা পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গিয়ে ইরানের ওপর যে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে তা প্রত্যাহার না করার কারণে তেহরান আইএইএ’কে সহযোগিতা করা কমিয়ে দিয়েছিল।