আটক করা হল শাহিনবাগের সেই দাদী’কে

Shaheen Bagh activist Bilkis Dadi detained at Delhi-Haryana

টাইম ম্যাগাজিন প্রতিবেদনে টাইম ম্যাগাজিন প্রতিবেদনে বিশ্বের ১০০ জন সবচেয়ে প্রভাবশালীর তালিকায় ছিল ‘শাহিনবাগের দাদি’ ।ভারতের দিল্লি-হরিয়ানা সীমান্ত থেকে আটক করা হল ‘শাহিনবাগের দাদী’ ৮২ বছরের বিলকিস বানুকে। শাহিনবাগের সিএএ-বিরোধী আন্দোলনের তিনি ছিলেন অন্যতম প্রধান মুখ। মঙ্গলবার কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে আন্দোলনকারী কৃষকদের সঙ্গে যোগ দিলে তাকে আটক করে ভারতের পুলিশ।

উল্লেখ্য,  ক’দিন আগেই কৃষক বিক্ষোভে শামিল হওয়া এক বৃদ্ধার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। সেই ছবি দেখে অনেকেই ওই বৃদ্ধাকে শাহিনবাগের দাদী বিলকিস বানু বলে দাবি করেন। এমনকি সেই ছবি টুইটারে শেয়ার করে সমালোচনা করেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত।

কঙ্গনা টুইট করেন, “হাহাহা। ইনি তো সেই দাদী, যিনি টাইম ম্যাগাজিনের প্রতিবেদনে জায়গা করে নিয়েছিলেন সবচেয়ে প্রভাবশালী ভারতীয় হিসেবে। এঁকে ১০০ টাকার বিনিময় ভাড়া পাওয়া যায়।” কঙ্গনার এই টুইট দেখেই চটে যান নেটিজেনরা।

দুই বৃদ্ধা আলাদা। তা নিশ্চিত না হয়ে ভুল খবর ছড়ানোর অভিযোগ ওঠে অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে। যদিও তড়িঘড়ি সেই টুইট ডিলিট করে দেন কঙ্গনা। বিশেষ করে শাহীনবাগ আন্দোলনের এই দাবির সম্পর্কে এমন আপত্তিকর মন্তব্য করায় নেটিজেনদের রোষের মুখে পড়তে হয় তাকে।

তবে এদিন কৃষকদের আন্দোলনে যোগ দিতে এসে আটক হন দাদী বিলকিস। বিলকিস বানু এদিন বলেছন, “আমরা চাষীর মেয়ে। আমাদের কথা শুনতে হবে সরকারকে।”

আরও পড়ুনঃ করোনা থেকে বাচঁতে ভারতে মুরগি কেনার ধুম!

তাকে আটক করার সময় ব্যাপক হট্টগোল হয়। যদিও কেন তাকে আটক করা হয়েছে, তার সদুত্তর পাওয়া যায়নি।