আগুনমুখায় তরমুজবাহী ট্রলারে দুর্বৃত্তদের হামলা, আহত ৭

Rangabali News

পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার  আগুনমুখা নদীতে একটি তরমুজবাহী  ট্রলারে হামলা চালিয়েছে দুর্বত্তরা। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার আগুনমুখা নদীর একটি ভাসাচর সংলগ্ন এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে রাঙ্গাবালীর গহিনখালী স্লুইসঘাট থেকে সাড়ে ৩ হাজার তরমুজ বোঝাই করে একটি ট্রলার গলাচিপার হরিদেবপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে হয়।

পথিমধ্যে রাত সাড়ে ১২ টায় আগুনমুখা নদীর ভাসা চর অতিক্রমকালে ট্রলারযোগে একদল দুর্বৃত্ত এসে তরমুজ বোঝাই ট্রলার আটকে হামলা চালায়। এসময় ট্রলারে থাকা মাঝি, তরমুজ মালিক ও ব্যাপারীসহ ৭ জনকে বেধড়ক মারধর করে আহত করে। একপর্যায় তরমুজ বোঝাই ট্রলারটি নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। পরে শুক্রবার ভোরে গলাচিপার টেংগাতলায় ওই ট্রলারটি ফেলে রেখে গেলে সেটিকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়।

এদিকে, আহতদের গলাচিপাসহ বিভিন্ন এলাকায় চিকিৎসা দেওয়া হয়। গলাচিপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আহত তরমুজ ব্যাপারী কবির মল্লিক জানান, হঠাৎ আমাদের হামলা চালায়। আমাদেরকে অনেক মারধর করে। এসময় আত্মরক্ষায় দুইজন নদীতে ঝাঁপ দেয়। আমাকেসহ তিনজনকে গাছবনে ফেলে যায়। আর ট্রলারসহ দুইজনকে নিয়ে যায়। শুনেছি পরে তারা সকলেই উদ্ধার হয়েছে।

রাঙ্গাবালী থানার ওসি দেওয়ান জগলুল হাসান বলেন, ‘গলাচিপা থানা এলাকায় ঘটছে। রাতে গলাচিপা থানায় রিপোর্ট হয়েছে। লোকজন উদ্ধার করছে পুলিশ।’  গলাচিপা থানার ওসি শওকত আনোয়ার জানান, ‘আগুনমুখা নদীতে যে ঘটনা ঘটছে, ওদের ওপরে যে আক্রমণ হয়েছে তারা সকলে নিরাপদে আছে।

ওখান থেকে কোন মালামাল লুটপাট হয় নাই। ট্রলার ও মাল অক্ষত অবস্থায় আছে। ওনাদের মারধর করে মালামাল ফেলে রেখে চলে গেছে। সম্ভবত কোন পূর্ব শত্রুতার জের ধরে হামলাটা করছে। ধারণা করা হচ্ছে, ব্যবসায়ী বিরোধের জের। এ ঘটনায় এখনও কোন মামলা কিংবা অভিযোগ হয়নি।

মাহমুদ,রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

 

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap